১২০ ওয়াটের ফাস্ট চার্জার আনছে ভিভো

গত কয়েক বছর ধরে স্মার্টফোনগুলোর ব্যাটারি ক্যাপাসিটি যেমন বাড়ছে ঠিক সেই সাথে পাল্লা দিয়ে এর জন্য চার্জারের গতিও বাড়ানো হচ্ছে। স্মার্টফোনের এ যুগে ফোনকে কয়েক ঘন্টার জন্য চার্জে ফেলে রাখা অনেকের জন্যই দুঃস্বপ্নের মতো যেখানে প্রতি সেকেন্ডেই অসংখ্য নোটিফিকেশনের এর দিকে নজর রাখতে হচ্ছে!

৫ ওয়াট থেকে ১০ ওয়াট, তারপর ১৫ ওয়াট, এরকম করতে করতে বিভিন্ন ফোনে আমরা ৪০,৫০ এমনকি ৫৫ ওয়াটের ফাস্ট চার্জারও দেখেছি এ বছর। এমনকি কিছুদিন আগে শাওমি বলেছিল তারা নাকি ১০০ ওয়াটের ফাস্ট চার্জারও আনতে যাচ্ছে। তবে এবার যেন এই সীমাকে ছাড়িয়ে যেতে চায় এশিয়ার এমার্জিং স্মার্টফোন ব্র্যান্ড ভিভো। তারা ঘোষণা করেছে সামনের সপ্তাহে সাংহাই এ অনুষ্ঠেয় মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেস ২০১৯ এ ১২০ ওয়াটের এক ফাস্ট চার্জার টেকনোলজির সাথে পরিচয় করিয়ে প্রযুক্তি বিশ্বকে। তারা এ প্রযুক্তির নাম দিয়েছে “সুপার ফ্ল্যাশ চার্জ”।

চাইনিজ সোশ্যাল মিডিয়া প্লাটফর্ম ওয়েইবো তে একটি পোস্ট এর মাধ্যমে ভিভো এ ব্যাপারে নিশ্চিত করেছে। পোস্টে তারা এ ব্যাপারে বিস্তারিত ব্যাখ্যা ও দিয়েছে। ভিভো বলছে নতুন এ ফ্ল্যাশ চার্জারের মাধ্যমে ৪০০০ মিলিএম্প ব্যাটারি ক্যপাসিটির একটি ফোন শূন্য থেকে ৫০ ভাগ চার্জ হতে সময় নিবে মাত্র ৫ মিনিট! আরো মজার ব্যাপার হচ্ছে ফোনের বাকি ৫০ ভাগ চার্জ হতে যে বেশি সময় নিবে তেমনটাও নয়। বরং ৫০ থেকে ১০০ ভাগে পৌঁছাবে মাত্র ৮ মিনিটে। তার মানে সম্পুর্ন ব্যাটারিটি চার্জ হতে সময় লাগবে মাত্র ১৩ মিনিট। এটি সত্যিই অবশ্বাস্য একটি প্রযুক্তি!

https://giphy.com/gifs/gj5Xfr2b2AkHT1Jpyc

ভিভোর এই ঘোষণা সত্যি হলে ফোনের ব্যাটারি ক্যাপাসিটি কিংবা চার্জিং নিয়ে আর কোন সমস্যা থাকবে না সেই আশা করাই যায়। ২৬ জুন মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেস সাংহাই তে বিস্তারিত জানা যাবে।

[★★] আপনিও একটি টেকবাজ একাউন্ট খুলে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি নিয়ে পোস্ট করুন! হয়ে উঠুন একজন দুর্দান্ত টেকবাজ! এখানে ক্লিক করে নতুন একাউন্ট তৈরি করুন।

ফেসবুকে যুক্ত হোন!

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য পেতে ইমেইলে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Leave a Comment

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

আমাদের প্রশ্ন করুন!