প্রথম ফোন হিসেবে গুগল পিক্সেল ৪ এ থাকছে সলি জেশ্চার প্রযুক্তি

পিক্সেল ৪ নিয়ে প্রযুক্তিপ্রেমীদের জল্পনার শেষ নেই। বিশেষ করে গত কিছুদিন যাবত লিক হওয়া এর ডিজাইন নিয়ে সমালোচনাও কম হচ্ছে না। এমনকি ব্যতিক্রমী কোম্পানি হিসেবে গুগল নিজেই তাদের নতুন পিক্সেল সম্পর্কিত বিভিন্ন টিজার প্রকাশ করে আসছে। অ্যাপল যদিও এসব ব্যাপারে গুগলের ঠিক বিপরীত।

যাই হোক, গতকাল প্রকাশ পাওয়া গুগলের ২২ সেকেন্ডের একটি পিক্সেল ৪ এর প্রোমো ভিডিওতে দেখা যায় এতে থাকছে ফেইস আনলক ও মোশন সেন্সিং টেকনোলজি। ফেস আনলক এখন আর নতুন কিছু নয়, তাই এটা নিয়ে এতটা মাতামাতি কেউ করবে ও না।

তবে তাদের ঘোষণা দেয়া নতুন এই মোশন সেন্সিং প্রযুক্তিটি বেশ মজার। এর মাধ্যমে আপনি ফোনের সামনে হাত নাড়িয়েই কল রিসিভ করা, কেটে দেয়া, এলার্ম স্নুজ করা সহ বিভিন্ন কাজ করতে পারবেন। অবশ্য এ ধরনের জেশ্চার প্রযুক্তি খুব একটা নতুন বিষয় নয়। আগেও বিভিন্ন ডিভাইসে এই ধরনের প্রযুক্তি দেখা গিয়েছে। তবে সেগুলো মোবাইলের ফ্রন্ট ক্যামেরা কিংবা প্রক্সিমিটি সেন্সর কাজে লাগিয়ে সফটওয়ার ভিত্তিতে কাজ করতো যা তেমন রিলায়েবল ছিল না।

তবে এমআইটি টেকনোলজি রিভিউ এর রিপোর্ট অনুযায়ী পিক্সেল ৪ এর এই জেশ্চার সিস্টেমের পিছনে রয়েছে গুগলের সলি জেশ্চার প্রযুক্তি যা তাদের নিজেদেরই ডেভেলপ করা। একই সাথে এটাই প্রথম ফোন যাতে সলি জেশ্চার থাকছে। সলি প্রযুক্তিটি আসলে আর কিছু নয়, বরং একটি ছোট্ট র‍্যাডার।

হ্যাঁ, ঠিকই শুনছেন। এটিও এভিয়েশন জগতে ব্যবহার করা রাডার এর মতোই কাজ করে। তবে আকারে ছোট আকৃতির। এর ফলে এটি সামনে কোন কাপড় কিংবা পর্দা থাকলেও, এমনকি অন্ধকারেও আপনার জেশ্চার বুঝতে পেরে কমান্ড নিবে। তাই এদিক থেকে গুগলের এই নতুন প্রযুক্তিটি আগের বিভিন্ন কোম্পানির দেখানো ওয়েভ জেশ্চার থেকে সম্পুর্ন আলাদা ও উন্নত হবে সেটা বুঝাই যাচ্ছে। তার পরেও অফিশিয়াল রিলিজের আগে প্রযুক্তিটির ক্ষমতা ও সঠিকটা সম্পর্কে কিছুই বলা যাচ্ছে না।

[★★] আপনিও একটি টেকবাজ একাউন্ট খুলে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি নিয়ে পোস্ট করুন! হয়ে উঠুন একজন দুর্দান্ত টেকবাজ! এখানে ক্লিক করে নতুন একাউন্ট তৈরি করুন।

ফেসবুকে যুক্ত হোন!

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য পেতে ইমেইলে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.