বেশকিছু আপগ্রেড নিয়ে এলো নতুন ওয়ানপ্লাস ৭টি

ওয়ানপ্লাস এর “টি” সিরিজকে অনেকটা মূল ফোনের স্পিন-অফ বলা যায়। সাধারণত বছরের শেষদিকে ছোটখাট কিছু আপগ্রেড নিয়ে এই ফোনগুলো লঞ্চ হয়। যেমনটি আমরা এর আগে ৩টি, ৫টি, ৬টি এর ক্ষেত্রে দেখেছি। তবে নতুন লঞ্চ হওয়া ৭টি উল্লেখযোগ্য কিছু পরিবর্তন নিয়ে এসেছে। এটি মূলত ওয়ানপ্লাস ৭ ও ৭প্রো এর মাঝামাঝি স্পেসিফিকেশনের একটি ফোন।

সবচেয়ে বড় এবং লক্ষ্যনীয় পরিবর্তন হলো এ ক্যামেরা সেটআপের ডিজাইন। এবারে অনেকটা নতুন হুয়াওয়ে মেট সিরিজের মতো গোলাকৃতি ক্যামেরা বাম্প ব্যবহার করা হয়েছে। তবে ক্যামেরার স্পেসিফিকেশন ওয়ানপ্লাস ৭ প্রো এর মতোই (ছোটখাট কিছু পরিবর্তন ছাড়া)। ওয়ানপ্লাস ৭ প্রো এর টেলিফটো লেন্সটি ৩ গুণ জুম করতে পারলেও এটি মাত্র দ্বিগুণ জুম করতে পারবে। একইসাথে এর টেলিফটো লেন্সে কোন ওআইএস থাকছে না যা ওয়ানপ্লাস ৭ প্রো তে ছিল।

এতে প্রসেসর হিসেবে নতুন স্ন্যাপড্রাগন ৮৫৫ প্লাস ব্যবহার করা হয়েছে যা আগের চেয়ে একটু শক্তিশালী। নতুন ৭টি এর ডিসপ্লেটি এবার ওয়ানপ্লাস ৭ প্রের মতো ফ্লুয়িড এমোলেড প্রযুক্তির। তার মানে এর ডিসপ্লেটি ৯০ হার্টজের রিফ্রেশ রেট সাপোর্ট করে। তবে ডিসপ্লে রেজ্যুলেশন ৭ প্রো এর চেয়ে কম, অর্থাৎ ১০৮০পি ডিসপ্লে। তবে এর ডিসপ্লেটি আগের ফোনগুলোর চেয়ে অনেক উজ্জ্বল।

ওয়ানপ্লাস ৭টি তে ওয়ার্প চার্জ ৩০টি ব্যবহার করা হয়েছে যার ফলে এটি আগের ফোনগুলোর চেয়ে ২৩% দ্রুত চার্জ হবে। সবকিছু মিলিয়ে ফোনটি গ্রাহকদের চাহিদা অনুযায়ী খুব উপযোগী কিছু আপগ্রেড নিয়ে এসেছে। অন্যদিকে দাম কমাতে ওয়ানপ্লাস ৭ প্রো এর বেশ কিছু কম দরকারী ফিচার বাদ দেয়া হয়েছে। তাই অনেকেই মনে করছেন ফোনটি গ্রাহকদের বেশ ভালোই মন জয় করবে।

 ওয়ানপ্লাস ৭টি এর স্পেসিফিকেশন

ডিসপ্লেঃ ৬.৫৫ ইঞ্চি, ১০৮০পি, ফ্লুইড এমোলেড ডিসপ্লে, ৯০ হার্টজ, এইচডিআর ১০+

চিপসেটঃ কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮৫৫ প্লাস

র‍্যামঃ ৮ জিবি

স্টোরেজঃ ১২৮/২৫৬ জিবি

ক্যামেরাঃ ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা

  • ৪৮ মেগাপিক্সেল সনি আইএমএক্স ৫৮৬ মেইন সেন্সর, এফ/১.৬
  • ১৬ মেগাপিক্সেল ওয়াইড এঙ্গেল লেন্স
  • ১২ মেগাপিক্সেল টেলিফটো লেন্স
  • ১৬ মেগাপিক্সেল ওয়াটারড্রপ নচ সেলফি ক্যামেরা

অন্যান্যঃ ডুয়াল সিম,ব্লুটুথ ৫.০, টাইপ সি, ইনডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার, এনএফসি

ব্যাটারিঃ ৩৮০০ মিলিএম্প, ৩০ ওয়াট ওয়ার্প চার্জ ৩০টি প্রযুক্তি

ওএসঃ এন্ড্রয়েড ১০ ভিত্তিক অক্সিজেন ওএস ১০

মূল্যঃ ৬০০ ডলার থেকে শুরু

[★★] আপনিও একটি টেকবাজ একাউন্ট খুলে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি নিয়ে পোস্ট করুন! হয়ে উঠুন একজন দুর্দান্ত টেকবাজ! এখানে ক্লিক করে নতুন একাউন্ট তৈরি করুন।

ফেসবুকে যুক্ত হোন!

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য পেতে ইমেইলে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Leave a Comment

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

আমাদের প্রশ্ন করুন!