বন্ধ হয়ে যাচ্ছে মাইক্রোসফট কর্টানা অ্যাপ

অ্যাপল এর সিরি এবং গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট এর মতই মাইক্রোসফটের রয়েছে কর্টানা। ২০১৫ সালে এন্ড্রয়েডআইফোনের জন্য কর্টানা উন্মুক্ত করে মাইক্রোসফট। এরপর কয়েক দফা ফিচার উন্নয়ন এবং বড় ধরনের রিডিজাইনের পরেও অন্যান্য ডিজিটাল এসিস্ট্যান্ট এর সাথে পেরে উঠেনি করটানা।

এমনকি উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেমেও রয়েছে এর উপস্থিতি। এই সবকিছু থাকা সত্ত্বেও মোবাইল ফোনে গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট ও সিরির সাথে প্রতিযোগিতায় এগোতে পারেনি এই হতভাগ্য ডিজিটাল অ্যাসিস্ট্যান্ট অ্যাপ। ফলশ্রুতিতে এবার করটানা বন্ধ করে দেয়ার ঘোষণা দিয়েছে মাইক্রোসফট।

২০২০ সালের ৩১ জানুয়ারির পর যুক্তরাজ্য, অস্ট্রেলিয়া, জার্মানি, স্পেন, কানাডা এবং ভারতের ব্যবহারকারীরা আর নতুন করে করটানা অ্যাপ ডাউনলোড করতে পারবেন না। তবে যুক্তরাষ্ট্রের ব্যবহারকারীরা এরপরেও অনির্দিষ্টকালের জন্য কর্টানা ডাউনলোড করতে পারবেন। কিন্তু তাদের জন্য সাপোর্ট কবে বন্ধ হবে তা এখনো নিশ্চিত না।

অবশ্য কর্টানা একেবারেও হারিয়ে যাচ্ছে না। কারণ মাইক্রোসফট নিশ্চিত করেছে যে, মাইক্রোসফট ৩৬৫ প্রোডাক্টিভিটি অ্যাপের মধ্যে কর্টানা ইন্টিগ্রেশন থাকবে। এছাড়া আউটলুক ইমেইলের আইওএস এবং অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপের মধ্যে কর্টানা ইন্টিগ্রেট করা আছে যা ব্যবহারকারীকে ইমেইল পড়ে শোনাতে পারবে।

আপনার হয়ত মনে আছে, বিশ্বকাপ ফুটবল ২০১৪ আসরের এলিমিনেশন রাউন্ডের আটটি ম্যাচ এবং কোয়ার্টার-ফাইনালের চারটি ম্যাচেরই সঠিক ভবিষ্যদ্বাণী করে তাক লাগিয়ে দিয়েছিল মাইক্রোসফটের ভার্চুয়াল অ্যাসিস্ট্যান্ট সফটওয়্যার করটানা। সে সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এই পোস্টটি পড়ুন

তো আপনি কি ব্যবহার করতেন মাইক্রোসফট এর কর্টানা? আপনার মতামত কমেন্টে জানান। ধন্যবাদ।

[★★] আপনিও একটি টেকবাজ একাউন্ট খুলে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি নিয়ে পোস্ট করুন! হয়ে উঠুন একজন দুর্দান্ত টেকবাজ! এখানে ক্লিক করে নতুন একাউন্ট তৈরি করুন।

ফেসবুকে যুক্ত হোন!

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য পেতে ইমেইলে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.