মেসেজিং সুবিধা যুক্ত হল গুগল ফটোস অ্যাপে

গুগল ফটোস এর শেয়ারড এলবাম ফিচারটি দিনদিন জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। সেই বিষয়কে মাথায় রেখে গুগল ফটোস এপ এ মেসেজিং এর সুবিধা যুক্ত করল গুগল। এখন থেকে গুগল ফটোস  এর এন্ড্রয়েড ও আইওএস এপ কিংবা ওয়েবসাইট ব্যবহার করে ব্যাক্তিগতভাবে ছবি প্রেরণ করা যাবে। ফোনের শেয়ার মেন্যুতেই দেখা মিলবে এই নতুন মেসেজিং ফিচার এর।

এখন থেকে গুগল ফটোস এর মাধ্যমে ছবি শেয়ার করতে পূর্বের ন্যায় এলবাম তৈরির প্রয়োজন পড়বে না। অন্যসব সোস্যাল মিডিয়াতে আমরা যেভাবে বন্ধুদের ছবি শেয়ার করি, গুগল ফটোস এর মাধ্যমে ঠিক সেভাবেই এখন থেকে ছবি পাঠানো যাবে।

ছবি পাঠানোর পাশাপাশি চ্যাটিং, ফটো লাইক এবং শেয়ার ও করা যাবে। অর্থাৎ  ছবিকেই কেন্দ্র করেই পুরো প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন হবে। এভাবে গুগল ফটোস একটু নতুন সোস্যাল প্লাটফর্মে রুপান্তরিত হওয়ার সম্ভাবনা ও রয়েছে।

২০১৫ সালে গুগল ফটোস এ ফ্রি অনলাইন স্টোরেজ যুক্ত করার পর থেকেই প্লাটফর্মটি ফটো শেয়ারিং এর জন্য ফটোগ্রাফার এবং অন্যান্য ব্যবহারকারীদের মাঝে জনপ্রিয়তা পেতে শুরু করে। স্মার্টফোনে যারা ফটো তুলতে ভালোবাসেন, এই ফিচারটি যুক্ত করার পর তাদের জন্য গুগল ফটোস ব্যাক্তিগত মূহুর্ত এর অসাধারণ  ছবিসমূহ সংরক্ষণ করার একটি মাধ্যমে পরিণত হয়।

গুগল এর ৯ম প্রোডাক্ট হিসেবে গুগল ফটোস এই বছরের শুরুর দিকেই ১ বিলিয়ন ব্যবহারকারীর মাইলফলক অতিক্রম করে। প্রায় সব সোস্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে ছবি শেয়ার করা গেলেও ব্যবহারিগণ বন্ধুদের সাথে সেগুলোর হাই-কোয়ালিটি ভার্সন শেয়ার করতে পারেন না। গুগল ফটোস এ ছবি শেয়ারিং ও মেসেজিং এর অপশন যুক্ত করার মাধ্যমে হাই-কোয়ালিটি ছবি শেয়ারিং এর সুবিধা পাবে ব্যবহারকারীগণ।

গুগল এর প্রোডাক্ট ম্যানেজার জানভি শাহ একটি ব্লগ পোস্টে বলেন, “এই ফিচারটি কোনো চ্যাটিং এপকে প্রতিস্থাপনের উদ্দেশ্যে যুক্ত হয়নি, বরং বন্ধু এবং পরিবারের সাথে নিজেদের ব্যাক্তিগত মূহুর্তের ছবি শেয়ারিং এর সুবিধা দেয়াই আমাদের লক্ষ্য।”

[★★] আপনিও একটি টেকবাজ একাউন্ট খুলে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি নিয়ে পোস্ট করুন! হয়ে উঠুন একজন দুর্দান্ত টেকবাজ! এখানে ক্লিক করে নতুন একাউন্ট তৈরি করুন।

ফেসবুকে যুক্ত হোন!

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য পেতে ইমেইলে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Leave a Comment

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

আমাদের প্রশ্ন করুন!