দুর্দান্ত স্পেসিফিকেশন নিয়ে মুক্তি পেলো ওয়ানপ্লাস ৭ প্রো

মাসখানেক ধরে এতো এতো লিক এর পর ওয়ানপ্লাস ৭ প্রো এর মূল স্পেসিফিকেশন এখনো কারো অজানা থাকার কথা না। এখনো জেনে না থাকলেও সমস্যা নেই। কারণ মাত্রই ওয়ানপ্লাস নিউইয়র্কে তাদের একটি লঞ্চ ইভেন্ট এর মাধ্যমে রিলিজ করেছে ওয়ানপ্লাস ৭ প্রো। তাদের মতে এটাই ২০১৯ এর সবচেয়ে সেরা স্মার্টফোন।

ওয়ানপ্লাস ৭ প্রো তে ওয়ানপ্লাস বেশ কিছু চমক নিয়ে এসেছে। একসময় ওয়ানপ্লাস কমদামে ফ্ল্যাগশিপ এর মতো ফোন বাজারে আনতো বলে ফ্ল্যাগশিপ কিলার বলা হতো। তবে সেগুলোতে দাম কমাতে গিয়ে কিছু কাটছাঁট থাকতো। তবে এবার সেরকমটি হচ্ছে না।

বরং আমেরিকার বাজারে অ্যাপল কিংবা স্যামসাংকে টেক্কা দেয়ার জন্য ট্রু ফ্ল্যাগশিপ হিসেবেই বাজারে এসেছে ওয়ানপ্লাস। দামও বেড়েছে আগের চেয়ে। কিন্তু তার পরেও অ্যাপল বা স্যামসাং এর তুলনায় বেশ কম।

তাদের ফোনটির সাইজ গত বছরের ওয়ানপ্লাস ৬টি এর মতো থাকলেও স্ক্রিন টু বডি রেশিও বাড়ানোর কল্যাণে এতে থাকছে আগের চেয়ে বড় এবং বেশি রেজ্যুলেশনের ডিসপ্লে। এতে থাকছে নতুন প্রযুক্তির ফ্লুয়িড এমোলেড ডিসপ্লে যা ৯০ হার্টজ রিফ্রেশ রেট সমর্থন করে।

আরো পড়ুন: ওয়ানপ্লাস ৭ দিবে সাধ্যের মাঝে সেরা এক্সপেরিয়েন্স

এমনকি ডিসপ্লেটি জনপ্রিয় ডিসপ্লে বেঞ্ছমার্ক ডিসপ্লে মেট এর কাছ থেকে এ প্লাস স্কোর পেয়েছে। সব মিলিয়ে ওয়ানপ্লাস এটাকে সবচেয়ে সেরা ডিসপ্লে বলছে।

এতে থাকছে ট্রিপল ক্যামেরা সেটআপ, পপ আপ সেলফি ক্যামেরা আর সেই সাথে আরো উন্নত ইন ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর। এর পপ আপ ক্যামেরা মডিউলটি ০.৫৩ সেকেন্ডে খুলে যায় আর সেই সাথে এটা সাড়ে চল্লিশ পাউন্ড পর্যন্ত স্ট্রেস নিতে পারে।

মজার ব্যাপার হচ্ছে এতে থাকা ফ্রি ফল ডিটেকশন সিস্টেম এর কল্যাণে হাত থেকে ফোন পড়ে গেলে এটি মাটিতে পড়ার আগেই পপ আপ ক্যামেরা বন্ধ হয়ে ক্ষতি থেকে বাঁচাবে। তাই এটার ডিউরেবিলিটি নিয়ে চিন্তার কিছু নেই। নোটিফিকেশন আসলে এর হরাইজন লাইট নোটিফিকেশন ফিচারের মাধ্যমে ডিসপ্লের চারপাশে নীল আলো জ্বলে জানাবে এটি।

ওয়ানপ্লাস ৭ প্রো এর স্পেসিফিকেশন

ডিসপ্লেঃ ৬.৬৭ ইঞ্চি, ১৪৪০পি, ফ্লুয়িড এমোলেড, ৯০ হার্টজ, এইচডিআর ১০ প্লাস, ৯৩.২২% স্ক্রিন টু বডি রেশিও

চিপসেটঃ কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮৫৫

র‍্যামঃ ৬/৮/১২ জিবি

স্টোরেজঃ ২৫৬ জিবি, ইউএফএস ৩.০

ক্যামেরাঃ ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা (ডিএক্সও মার্ক স্কোর ১১১)

  • সনি আইএমএক্স ৫৮৬, ৪৮ মেগাপিক্সেল ওয়াইড এঙ্গেল, এফ/১.৬, ওআইএস, ৭পি লেন্স
  • ১৬ মেগাপিক্সেল আলট্রা ওয়াইড, ১১৭ ডিগ্রি ভিউ
  • ৮ মেগাপিক্সেল টেলিফটো, ৩এক্স অপটিক্যাল জুম, ওআইএস

১৬ মেগাপিক্সেল পপ আপ সেলফি ক্যামেরা

অন্যান্যঃ লিকুইড কুলিং, ইন ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট, ডুয়াল স্পিকার, হরাইজন লাইট নোটিফিকেশন

ব্যাটারিঃ ৪০০০ মিলিএম্প, ওয়ার্প চার্জ, ২০ মিনিট চার্জে ৫০% ব্যাটারি ফুল

মূল্যঃ

  • ৬/১২৮ জিবি – ৬৬৯ মার্কিন ডলার
  • ৮/২৫৬ জিবি – ৬৯৯ মার্কিন ডলার
  • ১২/২৫৬ জিবি – ৭৪৯ মার্কিন ডলার

তিনটি রঙ এ বাজারে আসা ফোনগুলো আগামী ১৭ মে থেকে পাওয়া যাবে। একই সাথে তারা তাদের ওয়ারলেস হেডফোন ওয়ানপ্লাস বুলেট ওয়ারলেস ২ নিয়ে এসেছে যা আরো উন্নত অডিও এক্সপেরিয়েন্স দিবে। হেডফোনটি পাওয়া যাবে ৯৯ ডলারে।

[★★] আপনিও একটি টেকবাজ একাউন্ট খুলে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি নিয়ে পোস্ট করুন! হয়ে উঠুন একজন দুর্দান্ত টেকবাজ! এখানে ক্লিক করে নতুন একাউন্ট তৈরি করুন।

ফেসবুকে যুক্ত হোন!

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য পেতে ইমেইলে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

1 Comment

  1. Pingback: ওয়ানপ্লাস ৭ঃ সাধ্যের মাঝে সেরা এক্সপেরিয়েন্স – Techbaaj | টেকবাজ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.